IBM বিভক্ত হচ্ছে দুই ভাগে

IBM বিভক্ত হচ্ছে দুই ভাগে

বিশ্বের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ কম্পিউটিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস মেশিনস (আইবিএম)। কার্যক্রমে বৈচিত্র্য আনতে ১০৯ বছরের পুরনো প্রতিষ্ঠানটি দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে ব্যবসা পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পাশাপাশি ক্রমবর্ধমান ক্লাউড কম্পিউটিং ব্যবসা খাতে গুরুত্ব বাড়ানোর ইচ্ছা থেকে দুটি পৃথক পাবলিক প্রতিষ্ঠানে বিভক্ত হচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। খবর রয়টার্স।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, আগামী বছরের মধ্যে নতুন নামে প্রতিষ্ঠানের আইটি কাঠামো সেবাদাতা বিভাগকে শেয়ার বাজারে তালিকাভুক্ত করবে আইবিএম। ডাটা সেন্টারে প্রযুক্তিগত সমর্থন দেয়ার পাশাপাশি অন্যান্য আউটসোর্সিং সেবা দিয়ে থাকে আইবিএমের এ বিভাগ।

আইবিএমের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) অরবিন্দ কৃষ্ণের এমন পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির বিনিয়োগকারীরা। গত বছর ৩ হাজার ৪০০ কোটি ডলারে রেড হ্যাট অধিগ্রহণ চুক্তির পেছনের কারিগরও বর্তমান সিইও অরবিন্দ কৃষ্ণ।

বৈশ্বিক কম্পিউটিং হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার বাজার খারাপ সময় পার করছে। মেইনফ্রেম সার্ভার বাজারেও মন্দা সময় যাচ্ছে। পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে ক্লাউড কম্পিউটিং বাজারে উপস্থিতি বাড়াচ্ছে আইবিএম।

কার্যক্রমে বৈচিত্র্য আনতে আইবিএমকে বিভক্ত করে দুই প্রতিষ্ঠান হিসেবে ব্যবসা পরিচালনার মডেল ‘লক্ষণীয় পরিবর্তন’ উল্লেখ করে অরবিন্দ কৃষ্ণ বলেন, রেড হ্যাট অধিগ্রহণ চুক্তির সাফল্যের কারণে আমাদের আত্মবিশ্বাস বেড়েছে। আমরা আশা করছি ব্যবসা জোরদারের লক্ষ্যে আইবিএমকে ভেঙে দুই প্রতিষ্ঠান হিসেবে ব্যবসা পরিচালনার সিদ্ধান্ত সঠিক হবে।


গত ফেব্রুয়ারিতে বহুজাতিক কম্পিউটার হার্ডওয়্যার প্রতিষ্ঠান আইবিএমের সিইও হিসেবে ভারতীয় বংশোদ্ভূত অরবিন্দ কৃষ্ণের নাম ঘোষণা করা হয়। আইবিএমের দীর্ঘদিনের সিইও জিনি রোমেট্টির স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন তিনি। অরবিন্দ কৃষ্ণের নিয়োগ কার্যকর হয় গত এপ্রিলে।

২০১২ সালের শুরু থেকে আইবিএমের সিইওর দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন জিনি রোমেট্টি। তিনি নিজেই প্রতিষ্ঠানটির নতুন সিইও হিসেবে অরবিন্দ কৃষ্ণকে মনোনীত করেন। আইবিএমকে উজ্জ্বল ভবিষ্যতের দিকে নিয়ে যাওয়ার জন্য অরবিন্দই আইবিএমের যোগ্য সিইও বলে মন্তব্য করেন তিনি।

অরবিন্দ কৃষ্ণকে সিইও হিসেবে নির্বাচনের পাশাপাশি আইবিএমের পরিচালনা পর্ষদের অন্যতম ডিরেক্টর পদেও নিয়োগ দেয়া হয়েছে। তিনি গত ৬ এপ্রিল থেকে সিইওর দায়িত্ব বুঝে নেন। সিইওর দায়িত্ব নেয়ার আগে অরবিন্দ আইবিএমের ক্লাউড অ্যান্ড কগনিটিভ সফটওয়্যারের জ্যেষ্ঠ ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। গত বছর আইবিএম ৩ হাজার ৪০০ কোটি ডলারে ওপেন সোর্স সফটওয়্যার প্রোভাইডার ‘রেড হ্যাট’ অধিগ্রহণ করে। আইবিএমের এ অধিগ্রহণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন অরবিন্দ কৃষ্ণ।

৬২ বছর বয়সী জিনি রোমেট্টি আইবিএমের সঙ্গে টানা ৪০ বছর যুক্ত ছিলেন। চলতি বছরের শেষদিকে অবসরে যাবেন তিনি। আইবিএমের ইতিহাসে তিনিই প্রথম নারী এবং দ্বিতীয় দীর্ঘমেয়াদি সিইও হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

অন্যদিকে ৫৭ বছর বয়সী অরবিন্দ কৃষ্ণ ১৯৯০ সালে আইবিএমে যোগ দেন। তিনি কানপুরের ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট টেকনোলজি (আইটি) থেকে বিটেক পাস করার পর ইলিনয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পিএইচডি করেন।

বিশ্বের প্রথম সারির একগুচ্ছ নামি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের শীর্ষ পদে রয়েছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূতরা। মাইক্রোসফটের সিইও সত্য নাদেলা, গুগল নিয়ন্ত্রণাধীন অ্যালফাবেটের সিইও সুন্দর পিচাই, মাস্টার কার্ডের সিইও অজয় বাঙ্গাসহ আরো অনেকেই ভারতীয় বংশোদ্ভূত। এ তালিকায় সর্বশেষ যোগ হয়েছেন অরবিন্দ কৃষ্ণ এবং আইবিএমের ব্যবসা জোরদারে একের পর এক কার্যকর পদক্ষেপ নিচ্ছেন তিনি।

আরো দেখুন
মন্তব্য

Register

OR

Do you already have an account? Login

Login

OR

Don't you have an account yet? Register

Newsletter

Submit to our newsletter to receive exclusive stories delivered to you inbox!

keyboard_arrow_up