ব্লেন্ডার মেশিন কেনার পূর্বে যে পাঁচ বিষয় মাথায় রাখবেন!

ব্লেন্ডার মেশিন কেনার পূর্বে যে পাঁচ বিষয় মাথায় রাখবেন!

আজকালকার দিনে হোম এপ্লায়েন্স এর যতগুলো সামগ্রী রয়েছে তার মধ্যে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে ব্লেন্ডার মেশিন । পূর্বে অনেকেই এটা বিলাসিতার পণ্য বলে মনে করত । তবে দৈনন্দিন জীবনে এটা এখন খুবই গুরুত্বপূর্ণ । বিশেষ করে গৃহিণীদের জন্য। কারণ এগুলো তাদের দৈনন্দিন ঝামেলার কাজ গুলোকে আরো সহজতর করে দিয়েছে।

তবে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দেখা যায় আমরা যখন ব্লেন্ডার মেশিন কিনে বাসায় নিয়ে আসি এবং অতঃপর সেটা যখন ব্যবহার করে তখন কোনো কোন ক্ষেত্রে ব্লেন্ডার টি মন মাফিক হয় না ।এবং সেই চিন্তা ধারাকে মাথায় রেখেই, এই আর্টিকেলে আপনারা কিছু টিপস জানতে চলেছেন যেগুলো মাথায় রেখে ব্লেন্ডার মেশিন ক্রয় করলে আশা করা যায় আপনি আপনার ব্লেন্ডারের ব্যাপারে সন্তুষ্ট হবেন।

১.মোটর ক্যাপাসিটি

মোটর ক্যাপাসিটর ব্যাপারটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আপনি যদি অকেশনাল ইউজ অর্থাৎ আপনি যদি টুকটাক কাজের ক্ষেত্রে ব্লেন্ডার মেশিন ক্রয় করেন তাহলে সেই ক্ষেত্রে অবশ্যই মটরের ক্যাপাসিটি ৩০০ ওয়াট হতে হবে৷ এবং আপনি যদি প্রায়ই অর্থাৎ নিয়মিত আপনার ব্লেন্ডার মেশিন ব্যবহার করেন তবে সেক্ষেত্রে মোটরের ক্যাপাসিটি অবশ্যই ৫০০ ওয়াট এর উপরে হতে হবে৷ তা না হলে আপনার মোটরটি মাত্রা অতিরিক্ত গরম হবে, এমনকি মোটর টি পুড়ে যেতে পারে!

২.এস এস ব্লেড

দ্বিতীয় যে বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে সেটি হচ্ছে আপনার ব্লেন্ডারের ব্লেড স্টেনলেস স্টিল কি না? স্টেনলেস স্টিল হওয়াটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ৷ কারণ অধিকাংশ ক্ষেত্রেই আমরা পানির সাহায্যে ব্লেন্ডারে কাজ করে থাকি৷ সুতরাং ব্লেড গুলোর সুরক্ষা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে স্টেইনলেস স্টিলের ব্লেড আবশ্যক। একটা জিনিস মাথায় রাখবেন উচ্চমানের স্টেইনলেস স্টিলের ভেতর ক্রোমিয়াম এর পরিমাণ বেশি থাকে । এবং তার কারণে সেগুলো কখনোই চুম্বক দ্বারা আকর্ষিত হয় না।


৩.অপশন সংখ্যা

তৃতীয় যে বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে সেটি হচ্ছে অপশন সংখ্যা। অর্থাৎ আপনি আপনার ব্লেন্ডারের সাথে মোট কয়টি অপশন চান৷ হতে পারে সেটা ব্লেন্ডিং ,চোপিং , মিক্সিং । অপশনের সংখ্যা বেশি থাকলে আপনার ব্লেন্ডারের দাম বেশি হবে৷ তার পাশাপাশি ব্লেন্ডার এটি পরিচালনা করার জন্য বেশি বিদ্যুতের প্রয়োজন হবে । তবে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই বিদ্যুতের প্রয়োজনীয়তা অপশনের ধরনের ওপর নির্ভর করে। সুতরাং অপশন নির্বাচন করার পুর্বে আপনার পরিবারের জন্য কোন কোন অপশনটি একান্তই প্রয়োজন সেগুলো মাথায় রাখবেন । এবং যেগুলো তেমন প্রয়োজন নয় সেগুলো ভালো থেকে ঝেড়ে ফেলে দেওয়ায় ভালো।

৪.মোটর সেফটি

চতুর্থ যে বিষয়টি মাথায় রাখবেন সেটি হচ্ছে আপনার ব্লেন্ডারে আদৌ মোটর সেফটি রয়েছে কিনা?

মোটর সেফটি অর্থাৎ ওভারলোড বা থার্মাল প্রোডাকশন থাকতে হবে । বর্তমান সময়ে থার্মাল প্রোটেকশন বিভিন্ন যন্ত্রাংশ ব্যবহৃত অত্যাধুনিক প্রযুক্তি। যেটির মাধ্যমে যখনই ব্লেন্ডারের ওপর অতিরিক্ত চাপ পড়তে শুরু করবে তখন সেটি আপনা আপনি বন্ধ হয়ে যাবে । অন্য সকল যন্ত্রগুলোর ক্ষেত্রে এমনটাই ঘটবে। সুতরাং আপনার ব্লেন্ডারের যদি এই ধরনের মোটর সেফটি না থাকে তাহলে আপনার ব্লেন্ডার ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে। আপনার ব্লেন্ডার টিতে এই ধরনের মোটর ব্যবহার করা হয়েছে কিনা সেটি ব্লেন্ডারের স্পেসিফিকেশন থেকে বের করে নিতে হবে।

৫.মোটর ওয়ারেন্টি

সর্বশেষ যে বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে সেটি হচ্ছে মটর ওয়ারেন্টি৷ একটি ব্লেন্ডার মেশিনের মোটর হচ্ছে তার মূল চালিকাশক্তি। সুতরাং একবার যদি মোটরটি নষ্ট হয়ে যায় সেই ক্ষেত্রে আপনার ব্লেন্ডারটি কেনাই বৃথা। খুচরা দোকানে আমরা যে সকল ব্যান্ডের কিনি, স্বভাবতই সেগুলোতে কোন ওয়ারেন্টি থাকে না। সুতরাং আমার একান্ত পরামর্শ যখনই আপনারা ব্লেন্ডার সহ অন্য কোনো ইলেকট্রনিক যন্ত্রাংশ ক্রয় করবেন অবশ্যই আউটলেট থেকে ক্রয় করুন। এবং ওয়ারেন্টি নিশ্চিত করুন!


তথ্যসূত্র: ইসতিয়াক আহমেদ,, টেকজুম ডটটিভি

আরো দেখুন
মন্তব্য

Register

OR

Do you already have an account? Login

Login

OR

Don't you have an account yet? Register

Newsletter

Submit to our newsletter to receive exclusive stories delivered to you inbox!

keyboard_arrow_up