দেখে নিন, গেমিং ও ফটোগ্রাফির জন্য শাওমি রেডমি ৯সি

দেখে নিন, গেমিং ও ফটোগ্রাফির জন্য শাওমি রেডমি ৯সি

চলতি মাসের শুরুর দিকে দেশে রেডমি সাব-ব্র্যান্ডের আওতায় সাশ্রয়ী ও এন্ট্রি লেভেলের নতুন স্মার্টফোন রেডমি ৯সি উন্মোচন করেছে শাওমি বাংলাদেশ। তুলনামূলক কম দামে রেডমি গ্রাহকদের উন্নত গেমিং ও ফটোগ্রাফির অভিজ্ঞতা দিতে হ্যান্ডসেটটি হতে পারে দারুণ পছন্দ। তরুণ প্রজন্মকে টার্গেট করে শাওমি তাদের বাজেট লাইনআপের রেডমি ৯সি স্মার্টফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপের পাশাপাশি বড় ডিসপ্লে ও উন্নত প্রসেসর ব্যবহার করেছে। শাওমির নতুন ডিভাইসটির ডিজাইন, পারফরম্যান্স ও বিভিন্ন ফিচার নিয়ে আজকের আয়োজন—

ডিজাইন ও ডিসপ্লে: রেডমি ৯সি স্মার্টফোনের স্লিম ডিজাইন নজর কাড়বে। ডিভাইসটিতে রয়েছে ৬ দশমিক ৫৩ ইঞ্চির বেশ বড় আকারের এলসিডি ডট ড্রপ ডিসপ্লে। এর স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৮১ দশমিক ১। স্ক্রিনের রেজল্যুশন ৭২০ী১৬০০ পিক্সেল এবং পিপিআই ডেনসিটি ২৬৯। এর পিপিআই ডেনসিটি কিছুটা কম হওয়ায় দিনের বেলা অধিক আলোতে ডিসপ্লে দেখার ক্ষেত্রে কিছুটা সমস্যা হতে পারে। ডিভাইসটিকে ডিসপ্লে পারফরম্যান্স বিবেচনায় মোটামুটি বলা যায়।

কাঠামো: ডিভাইসটির কাঠামো প্লাস্টিকের তৈরি। এর বডি ডাইমেনশন ১৬৪.৯৭৭৯ মিলিমিটার। ওজন ১৯৬ গ্রাম। ডিভাইসটির রিয়ার প্যানেলে দেয়া হয়েছে টেক্সচারড ডিজাইন, যা যেকোনো ধরনের দাগ থেকে রক্ষা করবে এবং সবসময় রাখবে নতুনের মতো। এআই ফেস আনলক ব্যবহারকারীকে যেকোনো ধরনের অপ্রত্যাশিত অ্যাক্সেস থেকে নিরাপত্তা দেবে। রিয়ার প্যানেলের ওপরের বাম অংশে রয়েছে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ ও ফ্ল্যাশ। আইফোন ১১ প্রো ডিজাইনের ক্যামেরা সেটআপ হ্যান্ডসেটটিকে দিয়েছে আলাদা মাত্রা। ফলে স্বাভাবিকভাবেই এটি গর্জিয়াস লুক দেয়। এছাড়া রিয়ার প্যানেলের ওপরের অংশে রয়েছে একটি ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে একেবারে উপরের দিকে মাঝে। ডান সাইডে উপরে রয়েছে ভলিউম রকার, তার নিচে পাওয়ার বাটন। বাম সাইডে রয়েছে সিম ট্রে ও মেমোরি কার্ড স্লট। এতে স্ট্যান্ডবাই ডুয়াল সিম ব্যবহারের সুবিধা রয়েছে।

ক্যামেরা: যেকোনো পরিস্থিতিতে দ্রুত ও পরিষ্কার ছবি তোলার সুবিধা দিতে রেডমি ৯সি হ্যান্ডসেটে রয়েছে স্পোর্টস এআই ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা। এর প্রধান ক্যামেরা এফ/২.২ অ্যাপারচারের ১৩ মেগাপিক্সেলের, রয়েছে এফ/২.৪ অ্যাপারচারের ২ মেগাপিক্সেলের ডেফথ সেন্সর এবং এফ/২.৪ অ্যাপারচারের ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো ক্যামেরা। সঙ্গে রয়েছে এলইডি ফ্ল্যাশ। এছাড়া ডিভাইসটিতে ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ফেসিং ক্যামেরা আছে। সেলফির জন্য ডিভাইসটির ফ্রন্ট ক্যামেরা ব্যবহারকারীর প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ হতে পারে।

ওএস ও পারফরম্যান্স: রেডমি ৯সি স্মার্টফোনে মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫ অক্টা-কোর গেমিং চিপসেট ব্যবহার করা হয়েছে। ১২ ন্যানোমিটার প্রযুক্তিতে তৈরি এ প্রসেসর ২.৩ গিগাহার্টজ গতি দেবে। অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে রয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ১০ ভিত্তিক শাওমির কাস্টমাইজ অপারেটিং সিস্টেম এমআইইউআই ১২। ফলে স্বাভাবিকভাবেই অনেক নতুন ফিচার পাওয়া যাবে। ডিভাইসটিতে জিপিইউ রয়েছে পাওয়ার ভিআর জিই৮৩২০। ডিভাইসটি গেমিং চিপ সংবলিত হওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই ব্যবহারকারী ল্যাগ ছাড়াই গেম খেলতে পারবেন। এক্ষেত্রে ডিভাইসটির ৩ গিগাবাইট র‌্যাম সংস্করণ ক্রয় করতে হবে।


ব্যাটারি: সাধারণ ব্যবহারকারীর জন্য রেডমি ৯সি স্মার্টফোন দীর্ঘ সময় পাওয়ার ব্যাকআপ নিশ্চিত করবে। ডিভাইসটির ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ারের ব্যাটারি একবার সম্পূর্ণ চার্জে দুই দিন পর্যন্ত পাওয়ার ব্যাকআপ দেবে। গেমিংয়ের ক্ষেত্রে টানা ১২ ঘণ্টা ব্যাটারি ব্যাকআপ মিলবে। ডিভাইসটি চার্জ করার জন্য রয়েছে ইউএসবি মাইক্রো চার্জার। বক্সে মিলবে ১০ ওয়াটের চার্জার। চার্জিং সিস্টেমের জন্য ডিভাইসটি ফুল চার্জ হতে আড়াই ঘণ্টার মতো সময় নেয়, যা মাইক্রো ইউএসবির বদলে টাইপ-সি পোর্ট ব্যবহার করে কমিয়ে আনা যেত।

অন্যান্য ফিচার: রেডমি ৯সি স্মার্টফোনে নানা ধরনের ফিচারের পাশাপাশি থাকছে ফেস আনলক সুবিধা, ওয়াইফাই, ব্লুটুথ, এফএম রেডিও, ৩.৫ মিমি হেডফোন জ্যাক ও লাউডস্পিকারসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় ফিচার।

দাম: সাশ্রয়ী এন্ট্রি লেভেলের ফোন হিসেবে বাজারে ছাড়া হয়েছে রেডমি ৯সি। দেশের বাজারে ফোনটি সানরাইজ অরেঞ্জ, টুয়াইলাইট ব্লু এবং মিডনাইট গ্রে রঙে পাওয়া যাচ্ছে। ডিভাইসটির ২ গিগাবাইট র‌্যাম ও ৩২ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ সংস্করণের দাম ১০ হাজার ৯৯৯ টাকা এবং ৩ গিগাবাইট র‌্যাম ও ৬৪ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ সংস্করণের দাম ১২ হাজার ৪৯৯ টাকা। ডিভাইসটি দেশের সব অথরাইজড মি স্টোর ও রিটেইল পার্টনার স্টোরে পাওয়া যাচ্ছে।

আরো দেখুন
মন্তব্য

Register

OR

Do you already have an account? Login

Login

OR

Don't you have an account yet? Register

Newsletter

Submit to our newsletter to receive exclusive stories delivered to you inbox!

keyboard_arrow_up