অবশেষে বাজারে এল ফাইভজি সমর্থিত আইফোন

অবশেষে বাজারে এল ফাইভজি সমর্থিত আইফোন

চলতি বছর আইফোনপ্রেমীদের প্রতীক্ষা কিছুটা লম্বা ছিল। অ্যাপল প্রতি বছর সেপ্টেম্বর ইভেন্টে আইফোন উন্মোচন করলেও এবার তা করা হয়নি। কিছুটা বিলম্বে প্রতীক্ষার অবসান হলো আইফোনপ্রেমীদের। গত মঙ্গলবার নতুন চারটি আইফোনের ঘোষণা দিয়েছে অ্যাপল। ডিভাইসগুলো হলো আইফোন ১২ প্রো ম্যাক্স, আইফোন ১২ প্রো, আইফোন ১২ ও আইফোন ১২ মিনি। আইফোন ১২ ও আইফোন ১২ মিনি চলতি বছরের সাশ্রয়ী মডেল হিসেবে বাজারে ছাড়া হবে। অ্যাপল চলতি বছরের চারটি আইফোনেই পঞ্চম প্রজন্মের মোবাইল নেটওয়ার্ক প্রযুক্তি ফাইভজি সমর্থন নিয়ে এসেছে। ডিভাইসগুলোর স্পেসিফিকেশন ও বিভিন্ন ফিচার নিয়ে আজকের আয়োজন—

আইফোন ১২ প্রো ও আইফোন ১২ প্রো ম্যাক্স

আইফোন ১২ প্রো মডেলটিতে ব্যবহূত হয়েছে ৬ দশমিক ১ ইঞ্চি অর্গানিক লাইট-এমিটিং ডায়োড বা ওএলইডি ডিসপ্লে। অন্যদিকে আইফোন ১২ প্রো ম্যাক্সে ব্যবহূত হয়েছে তুলনামূলক বড় আকৃতির ৬ দশমিক ৭ ইঞ্চি ডিসপ্লে। উভয় ফোনেই ব্যবহূত অ্যাপলের নিজস্ব এ১৪ বায়োনিক প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে, যা দ্রুত কাজ সম্পাদনা নিশ্চিত করবে। ডিভাইস দুটিতে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ রাখা হয়েছে। এর মধ্যে আইফোন ১২ প্রোতে পেছনে লিডার স্ক্যানার থাকবে, যাতে কোনো বস্তু বা ঘর স্ক্যান করা এবং এআর ফিচার ব্যবহার করা যাবে। এর বাইরে লিডার স্ক্যানারে কম আলোতে অটো ফোকাস ও ক্যাপচার টাইম আরো উন্নত হবে। ডিভাইস দুটির ১২৮ গিগাবাইট, ২৫৬ গিগাবাইট ও ৫১২ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ সংস্করণ গ্রাফাইট, সিলভার, গোল্ড ও প্যাসিফিক ব্লু রঙে পাওয়া যাবে। অ্যাপলের দাবি, আইফোন ১২ প্রো মডেলের ক্যামেরায় বাড়তি গুরুত্ব দেয়া হয়েছে।

আইফোন ১২

চলতি বছর আইফোন ১২ মডেলটিতেও ৬ দশমিক ১ ইঞ্চি মাপের ওএলইডি ডিসপ্লে রাখা হয়েছে। তুলনামূলক সাশ্রয়ী ডিভাইসটি সাদা, কালো, লাল ও নীল রঙে বাজারে পাওয়া যাবে। ডিভাইসটিতে অ্যাপলের নিজস্ব এ১৪ বায়োনিক প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। ডিভাইসটিতে ব্যবহূত ছয় কোরের সিপিইউ অন্য স্মার্টফোনের চেয়ে ৫০ শতাংশ দ্রুতগতির। এতে নতুন চার কোর জিপিইউ থাকছে, যা অন্য ফোনের চেয়ে ৫০ শতাংশ দ্রুতগতির। আইফোন ১২ মডেলে আরো টেকসই সিরামিক শিল্ড গ্লাস প্রযুক্তি ব্যবহূত হয়েছে। সব মডেলের আইফোনেই আইওএস ১৪ সফটওয়্যার থাকছে। এর আগে আইপ্যাড এয়ারে ব্যবহূত এ১৪ বায়োনিক চিপসেট এবার আইফোনে ব্যবহূত হয়েছে। আইফোন ১২ মডেলে দুটি ১২ মেগাপিক্সেলের ওয়াইড অ্যাঙ্গেল সেন্সর থাকছে, যা কম আলোতে ভালো ছবি তুলতে পারবে। আইফোনে নতুন ম্যাগসেফ তারহীন চার্জিং স্ট্যান্ডার্ড চালু করেছে অ্যাপল, যা ১৫ ওয়াট দ্রুতগতির ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তি সমর্থন করবে।

আইফোন ১২ মিনি

চলতি বছর নতুন ৪ আইফোনের মধ্যে সবচেয়ে ছোট ও সাশ্রয়ী সংস্করণ হিসেবে আসছে আইফোন ১২ মিনি। ডিভাইসটিতে আকার বাদে আইফোন ১২-এর সব ফিচার মিলবে। ডিভাইসটিতে থাকছে ৫ দশমিক ৪ ইঞ্চি সুপার রেটিনা এক্সডিআর ডিসপ্লে। ডিভাইসটি ৪ দশমিক ৭ ইঞ্চি মাপের আইফোন ৭-এর চেয়েও পাতলা ও হালকা হবে। অ্যাপলের এবারের নতুন আইফোনের ক্যামেরায় ডিপ ফিউশন মেশিন লার্নিং প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে।

দাম

আইফোন ১২ মিনির ভিত্তিমূল্য ৬৯৯ ডলার। আইফোন ১২-এর ৬৪ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ সংস্করণের দাম ৭৯৯ ডলার। আইফোন ১২ প্রোর ১২৮ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ সংস্করণের দাম ৯৯৯ ডলার। অন্যদিকে আইফোন ১২ প্রো ম্যাক্সের ভিত্তিমূল্য ধরা হয়েছে ১০৯৯ ডলার। ডিভাইসগুলোর অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ সুবিধার ওপর ভিত্তি করে ক্রয় মূল্য কম-বেশি হবে।

ফাইভজি সমর্থন

আইফোনপ্রেমীদের মধ্যে ফাইভজি সমর্থিত আইফোনের দাবি ছিল। এবার সে প্রত্যাশা পূরণ করেছে অ্যাপল। অ্যাপলের প্রতিদ্বন্দ্বী স্যামসাং ও হুয়াওয়েসহ প্রায় সব চীনা ডিভাইস ব্র্যান্ড ফাইভজি সমর্থিত স্মার্টফোন বাজারে ছেড়েছে। এক্ষেত্রে পিছিয়ে ছিল অ্যাপল। এবার আইফোনপ্রেমীদের প্রতীক্ষার অবসান ঘটাল অ্যাপল। এর ফলে আইফোনে এখন ফাইভজি নেটওয়ার্ক প্রযুক্তি পরখ করা যাবে।

বিশ্বের অনেক গুরুত্বপূর্ণ টেলিকম বাজারে ফাইভজির বাণিজ্যিক ব্যবহার শুরু হয়েছে। অনেক দেশ দ্রুত ফাইভজি নেটওয়ার্ক ব্যবহারে ঝুঁকছে। এক্ষেত্রে ফাইভজি আইফোন অ্যাপলের ডিভাইস ব্যবসা বিভাগের বিক্রি প্রবৃদ্ধিতে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে বলে মনে করা হচ্ছে।

আরো দেখুন
মন্তব্য

Register

OR

Do you already have an account? Login

Login

OR

Don't you have an account yet? Register

Newsletter

Submit to our newsletter to receive exclusive stories delivered to you inbox!

keyboard_arrow_up