অপো এফ ১৭ ফোনে কি আছে দেখে নিন

অপো এফ ১৭ ফোনে কি আছে দেখে নিন

গত সেপ্টেম্বর মাসে অপো এফ১৭ র এর অ্যানাউন্সমেন্ট হওয়ার পর থেকেই বাংলাদেশের মোবাইল বাজারে একটা রমরমা ভাব বিরাজ করছে। মোবাইলটি এনাউন্স করার পর থেকেই ইউটিউব টিভি চ্যানেল সহ সকল স্থানে এর বিজ্ঞাপন প্রচার করা হচ্ছে। এই বিজ্ঞাপন দেখেননি এমন মানুষ পাওয়া এখন খুব কঠিন হয়ে গেছে।

মোবাইলটি বাংলাদেশের বাজারে রিলিজ হয়েছে সেপ্টেম্বরের ৭ তারিখে। রিলিজ হওয়ার পর থেকেই ফোনটি অনেক বিখ্যাত হয়ে গেছে।

জেনে নেয়া যাক এর মধ্যে কি আছে যার জন্য মোবাইলটা এত বিখ্যাত। প্রথমে কথা বলব মোবাইলটির বডি নিয়ে।

মোবাইলের বডি ডাইমেনশন ১৬০.১×৭৩.৮×৮.৫মিলিমিটার মোবাইলটির ওজন মাত্র ১৬৪ গ্রাম। মোবাইল ফোনটি ইউজ করা হয়েছে গ্লাস এবং বাকি ইউজ করা হয়েছে প্লাস্টিক। কিন্তু এত দামি একটা মোবাইলের ব্যাক এ প্লাস্টিক ইউজ করা আমরা এতে অনেক হতাশ হয়েছি। মোবাইলটিতে ব্যবহার করা যাবে ডুয়েল ন্যানো সিম কার্ড। এবার কথা বলা যায় এই মোবাইলের সব থেকে আকর্ষণীয় জিনিস নিয়ে।

মোবাইলের ডিসপ্লে সেকশনে ডিসপ্লে হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে ৬.৪৩ ইঞ্চির সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে। ডিসপ্লে রেজুলেশন ১০৮০×২৪০০পিক্সেল।ডিসপ্লেটি রেশিও ২০ঃ৯। ডিসপ্লে ডেনসিটি ৪০৮ পিপিই ডেনসিটি। ডিসপ্লেটি স্কিন প্রটেকশন হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে কর্নিং গরিল্লা গ্লাস ৩ প্লাস। মোবাইলটিতে অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে অ্যান্ড্রয়েড টেন। ইউজার ইন্টারফেস হিসেবে দেয়া হয়েছে অপর নিজস্ব কালার ওয়েস ৭.২।

মোবাইলে যে চিপসেট হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে মিডিয়াটেক হেলিও পি৯৫।এটি একটি বারও ন্যানোমিটার অক্টা কোর প্রসেসর। যার সাথে দ্বিতীয় হিসেবে দেওয়া হয়েছে পাওয়ার ভি আর জিএম ৯৪৪৬। মোবাইলের একটি ভার্সনে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। সেই ভাষণে ইন্টার্নাল মেমোরি হিসেবে দেওয়া হয়েছে ১২৮ জিবি মেমোরি। এক্সটার্নাল মেমোরি কার্ডটি ব্যবহার করা যাবে। র্যাম হিসেবে দেওয়া হয়েছে ৮ জিবি র্যাম।


চলুন এবার কথা বলা যাক মোবাইলের সবথেকে আকর্ষনীয় একটি অংশ ক্যামেরা নিয়ে। বাজারে এই বাজেটে প্রায় অন্যান্য সকল মোবাইলের মত এতে ব্যবহার করা হয়েছে কোয়ার্ড ক্যামেরা। মেইন ক্যামেরাটি ৪৮ মেগাপিক্সেল এর একটি ওয়াইড লেন্স। আর বাকি তিনটি ক্যামেরাগুলো হল যথাক্রমে ৮মেগাপিক্সেল এর আল্ট্রা ওয়াইড লেন্স ২ মেগাপিক্সেল এর ম্যাক্রো লেন্স এবং ২ মেগাপিক্সেল এর ডেপথ সেন্সর। রিয়ার ক্যামেরা দিয়ে ভিডিও করা যাবে4k 30fps,1080P-30fps. সবচেয়ে ভালো করা বিষয় হলে এতে সেলফি ক্যামেরা হিসেবে ডুয়েল ক্যামেরা সেটআপ দেয়া হয়েছে। মেইন ক্যামেরাটি হচ্ছে ১৬ মেগাপিক্সেল এর ওয়াইড লেন্স। এবং দ্বিতীয় ক্যামেরাটি হচ্ছে ২ মেগাপিক্সেল এর ডেপথ সেন্সর। সেলফি ক্যামেরা দিয়ে ভিডিও করা যাবে 1080P 30fps। লাউড স্পিকার ৩.৫ মিলিমিটার অডিও জ্যাক সব ই আছে মোবাইলে।

মোবাইলটিতে ব্যাটারি হিসেবে দেয়া হয়েছে ৪০১৫ মিলি এম্পিয়ারের একটি নন রিমুভেবল ব্যাটারি। মোবাইলটি থার্টি ওয়াট এর ফাস্ট চার্জিং সাপোর্টেড। অপো থেকে দাবি করছে মোবাইলটি ৫০% চার্জ হয়ে যাবে ৩০ মিনিটে। সম্পূর্ণ চার্জ হতে সময় লাগে ৫৩ মিনিট। মোবাইলটি বাজারে পাওয়া যাচ্ছে তিনটি ক্যালারে।ম্যাজিক ব্লু ম্যাট ব্ল্যাক মেটাললিক হোয়াইট।মোবাইলটি বাংলাদেশের বাজারে অফিশিয়ালি পাওয়া যাচ্ছে ২৭৯০০ ।

প্রতিটা মোবাইলের কিছু খারাপ দিক এবং ভালো দিক থাকে তো চলুন জেনে নেয়া যাক এই মোবাইলটি ভালো এবং খারাপ দিক গুলো। এই মোবাইলটি ভালো দেখবেন আমাদের রয়েছে সুন্দর ডিজাইন, ফুল এইচডি সুপার এমোলেড ডিসপ্লে,মিড রেঞ্জ অনেক ভালো ক্যামেরা, ৩০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং। ৮জিবি র্যাম এবং ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। মোবাইলের খারাপ দিক গুলোর মধ্যে একটি চিপসেট। এবং অন্য খারাপ দেখতে হল প্লাষ্টিক বডি।

আরো দেখুন
মন্তব্য

Register

OR

Do you already have an account? Login

Login

OR

Don't you have an account yet? Register

Newsletter

Submit to our newsletter to receive exclusive stories delivered to you inbox!

keyboard_arrow_up